আলিফ

Published:
2020-07-12 21:51:18 BdST

‘এ’ সিরিজে সাইড ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও পাঞ্চ হোল নিয়ে এলো অপ্পো


চমৎকার স্মার্টফোন ফটোগ্রাফি অভিজ্ঞতার জন্য তরুণ স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের আস্থা ও ভালোবাসা অর্জন করেছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড অপোর দুর্দান্ত পারফরমেন্সের ডিভাইসগুলো।

এরই ধারাবাহিকতায় অপো এবার দেশের বাজারে আনছে ‘এ’ সিরিজের নতুন ডিভাইস অপো এ৯২।

নতুন এ স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ৬.৫ ইঞ্চির এফএইচডি+ নিও ডিসপ্লে এবং ফোনটির পেছনে রয়েছে ৪৮ মেগাপিক্সেলের এআই কোয়াড ক্যামেরা।

স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে আল্ট্রা হাই রেজ্যুলেশন ডিসপ্লে, যার ফলে স্মার্টফোনটিতে ভিডিও দেখা এবং গেম খেলার সময় ব্যবহারাকরীরা উজ্জ্বল ও দারুণ ভিউইং অভিজ্ঞতা লাভ করবেন।

অ্যাম্বিয়েন্ট লাইট ও ব্যবহারকারীর প্রতিদিনের অভ্যাসের ওপর ভিত্তি করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্ক্রিনের ব্রাইটনেস সমন্বয়ের জন্য ১০৮০পি এফএইচডি+ নিও ডিসপ্লেতে আছে ইমার্সিভ আই কেয়ার মোড। যার ফলে, স্মার্টফোনটির ডিসপ্লের নীল আলো নিঃসরণ হ্রাস পেয়েছে। তাই নতুন এ ফোনটি ব্যবহারে ব্যবহারকারীদের চোখেরও কোনো অস্বস্তি হবে না।

স্মার্টফোন ফটোগ্রাফিতে আগ্রহীদের চাহিদা ও আকাঙ্ক্ষা পূরণেও এগিয়ে অপো এবং নতুন এ ডিভাইসটির ক্ষেত্রেও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। ৪৮ মেগাপিক্সেলের এআই কোয়াড ক্যামেরাতে এফ/১.৭ বড় অ্যাপারচারসহ একটি ৪৮ মেগাপিক্সেল এআই মূল ক্যামেরা, ১১৯ ডিগ্রি আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং দুটি উদ্ভাবনী পোর্ট্রেট স্টাইল লেন্স রয়েছে। ডিভাইসটির বড় অ্যাপারচার দিয়ে খুব সহজে আল্ট্রা-ক্লিয়ার ভিডিও, রাতের বেলার পরিষ্কার ছবি এবং অধিক লাইট ও ডিটেইলসে চমৎকার ছবি তোলা যাবে।

ডিভাইসটির আল্ট্রা ক্লিয়ার নাইট মোড ২.০ দিয়ে ব্যবহারকারীরা রাতের বেলা উজ্জ্বল আলো ছাড়াই অন্ধকার জায়গায় চমৎকার ডিটেইলস সমৃদ্ধ ঝকঝকে ছবি তুলতে পারবেন। ডিভাইসটিতে থাকা ভিডিও অ্যান্টি-শেক ফিচারটি পরিষ্কার এবং স্থির ছবি ও ভিডিও ধারণে সহায়তা করবে। ১২০ এফএস স্লো-মো ভিডিও ফাংশন দিয়ে ভিডিও ধারণের বিষয়টি বেশ উপভোগ্য হবে। এছাড়াও, এ৯২ ডিভাইসটি দিয়ে ফোরকে ভিডিও ধারণ করা যাবে। ডিভাইসটির ১৬পি পাঞ্চহোল সামনের ক্যামেরায় এফ/২.০ লেন্স আছে এবং এতে অপোর এআই বিউটিফিকেশন মোড থাকায় এটি দিয়ে ভিন্ন লাইটিং কন্ডিশনে ও পরিবেশে দৃশ্য ধারণ করা যাবে এবং এ ক্যামেরা দিয়ে ব্যবহারকারীরা পছন্দের স্টাইলে সেলফি তুলতে পারবেন।

উচ্চগতির পারফরমেন্স নিশ্চিত করতে অপো এ৯২ ডিভাইসটিতে কোয়ালকমের ১১এনএম স্ন্যাপড্রাগন ৬৬৫ চিপসেট ব্যবহার করা হয়েছে। ডিভাইসটির ৮ গিগাবাইট এলপিডিডিআর৪এক্স র‍্যামের কারণে অ্যাপ ইনস্টল করা কিংবা ফাইল কপি করার সময় ব্যবহারকারীকে দ্রুততম স্মার্টফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা প্রদান করবে। দ্রুততম সময়ে মেমোরি প্রসেসিংয়ের জন্য ফোনটিতে রয়েছে ১২৮ জিবি ইউএফএস ২.১ রম।

অপো ‘এ’ সিরিজে যুক্ত হওয়া নতুন এ৯২ ডিভাইসটিতে রয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের শক্তিশালী ব্যাটারি, যা ব্যবহারকারীর সারাদিন স্বাচ্ছন্দ্যে ফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে। ফোনটিতে থাকা ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সুবিধার কারণে দ্রুততম সময়ে মধ্যে ফোনটি সম্পূর্ণ চার্জ হবে।

ফোনটিতে সুপার-লিনিয়ার ডুয়াল স্টেরিও স্পিকার ও ডাইর‍্যাক স্টেরিও ওয়াইডেনিং প্রযুক্তি থাকায় ব্যবহারকারীরা ইমার্সিভ সাউন্ডে নিরবচ্ছিন্নভাবে গান শুনতে পারবেন, ভিডিও দেখতে পারবেন এবং গেম উপভোগ করতে পারবেন।

অ্যান্ড্রয়েড ১০ ভিত্তিক অপোর নিজস্ব উদ্ভাবনী কালারওএস ৭.১ ব্যবহারকারীদের ফোনে ডার্ক মোড ব্যবহারে চমৎকার অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে, যা একইসাথে চোখকে সুরক্ষিত রাখার পাশাপাশি ফোনের ব্যাটারিও সাশ্রয় করবে।

এ ফোনটিতে অপো সাইড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর নিয়ে এসেছে। চোখ ধাঁধানো তিনটি রঙে (অরোরা পার্পল, শাইনিং হোয়াইট এবং টোয়াইলাইট ব্ল্যাক) অপো এ৯২ একটি থ্রিডি কোয়াড-কার্ভ ডিজাইন এব অপ্টিমাইজড কার্ভেচারে পাওয়া যাবে। যা ব্যবহারকারীকে স্মার্টফোন ব্যবহারের আরো উন্নত অভিজ্ঞতা দিবে।

শীঘ্রই দেশের বাজারে পাওয়া যাবে অপো এ৯২।

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড 'অপো' এর ক্রেতাদের শিল্প ও উদ্ভাবনী প্রযুক্তির মিশেলে তৈরি পণ্য সরবরাহের জন্যে একটি নিবেদিত প্রতিষ্ঠান।

তারুণ্য, নতুন ট্রেন্ড/প্রবণতা সৃষ্টি আর সৌন্দর্যের প্রতীক একটি ব্র্যান্ড হিসেবে ডিজিটাল জীবনযাত্রার আরো অসাধারন অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করতে অপো বরাবরই তার গ্রাহকদের জন্যে নিয়ে আসে সর্বোত্তম সেবা দিতে সক্ষম ইন্টারনেট অপটিমাইজড প্রোডাক্ট।

এই ব্র্যান্ডের হাত ধরেই সূচনা হয় ‘সেলফি বিউটিফিকেশন’ এর এক নতুন যুগ। স্মার্টফোন জগতে নিজেদের এক ভিন্ন ভাবমূর্তি প্রতিষ্ঠায় ‘অপো’ নিয়ে এসেছে ‘মোটোরাইজড রোটেটিং’ ক্যামেরা, আল্ট্রা এইচডি ফিচার, ৫এক্স ডুয়াল ক্যামেরা জুম প্রযুক্তি।

২০১৬ সালে ‘অপো’র সেলফি-বিশেষজ্ঞ খ্যাত ‘এফ’ সিরিজ বাজারে আসার পরপরই স্মার্টফোন জগতে সেলফি তোলার প্রবণতা সৃষ্টিতে অগ্রগ্রামী ভূমিকা রাখে অপো।

২০১৭ সালে আইডিসির র‍্যাংকিং অনুসারে অপো বিশ্বের চতুর্থ সেরা স্মার্টফোণ ব্র্যান্ড হিসেবে নির্বাচিত হয়।

বর্তমানে ৪০টি দেশে ২০ কোটির অধিক গ্রাহক আর ৪,০০,০০০ এর অধিক স্টোর আর বিশ্বজুড়ে ৪টি রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট সেন্টারের মিশেলে বিশ্বজুড়েই তরুণদেরকে স্মার্টফোন ফটোগ্রাফিতে সর্বোৎকৃষ্ট অভিজ্ঞতা দিয়ে চলেছে অপো।

Unauthorized use or reproduction of The Finance Today content for commercial purposes is strictly prohibited.


Popular Article from FT বাংলা