September 28, 2020, 11:23 pm


আলিফ

Published:
2020-07-21 00:32:08 BdST

তদবীর বাণিজ্যে কোটিপতি সেলফিবাজ রিয়াজুল!


লেখাপড়া করেছেন নবম শ্রেণী পর্যন্ত। অনলাইন মাধ্যমে বিভিন্ন অনুমোদনহীন প্রতিষ্ঠানের মালিক পরিচয়ে সমাজের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিদের সাথে সেলফি তোলাই তার নেশা।

নিজেকে ক্ষমতাধর সাংবাদিক ও ব্যবসায়ী পরিচয় দিয়ে সচিবালয়সহ সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন দপ্তরে তদবির বাণিজ্য তার মূল টার্গেট। আর এসবের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন বরিশালের এক অজ পাড়াগাঁয়ের রাজমিস্ত্রি বাবার নবম শ্রেণী পড়ুয়া সন্তান রিয়াজুল ইসলাম শুভ।

মাত্র নবম শ্রেণীতে পড়াশুনা করে একটা কথিত অনলাইন পত্রিকা ‘ডেইলি প্রজন্ম.কম’ এর সম্পাদক ও প্রকাশক হিসেবে পরিচয় দেন তিনি। অনেকেই এই নতুন সেলফিবাজ শুভকে সমাজের আরেক সাহেদ হিসেবে তুলনা করেন।

সেলফি বাজির মাধ্যমে নিজেকে একজন ক্ষমতাধর ব্যক্তি হিসেবে জাহির করেন তিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্র জানায়, সাহেদের মতই বিভিন্ন ভাবে প্রতারণা করে আসছেন রিয়াজুল ইসলাম শুভ।

তার গ্রামের বাড়ি পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানী উপজেলায়। তার বাবা একজন রাজমিস্ত্রী ছিলেন। প্রাতিষ্ঠানিক কোন প্রকার শিক্ষাগত যোগ্যতা ছাড়াই নিজেকে পত্রিকার সম্পাদক প্রকাশক, কখনো সরকারদলীয় নেতা, আবার কখনো ক্ষমতাধর ব্যবসায়ী হিসেবে মানুষের সামনে জাহির করে আসছেন তিনি।

সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে তদবির বাণিজ্য ও মানুষের সাথে প্রতারণার মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার মালিক বনে গেছেন এই অশিক্ষিত সাংবাদিক পরিচয় দেওয়া রিয়াজুল ইসলাম শুভ।

জানা গেছে, তিনি সরকারি বেসরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বদলির কনট্রাক নিয়ে থাকেন। এমনকি সচিবকেও বদলির তদবির করেন তিনি।

তদবিরবাজ শুভর নামে রয়েছে বেনামে বিভিন্ন অনুমোদনহীন প্রতিষ্ঠান। যার অস্তিত্ব শুধুই অনলাইন ভিত্তিক। উল্লেখযোগ্য কোম্পানীগুলো হলো ট্রিপ এন্ড কেয়ার, ডাক এক্সপ্রেস, রিয়াজিং। ভূয়া সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দিয়ে তদবিরসহ বিভিন্ন অবৈধ পন্থায় তিনি অর্থ আত্মসাৎ করেছেন।

সমাজের বিভিন্ন শ্রেণীর প্রতিষ্ঠিত ও রাজনৈতিক ব্যক্তিদের সাথে সেলফি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেকে একজন ক্ষমতাধর ব্যক্তি হিসেবে পরিচয় দেন এই রিয়াজুল। 

আর এসব অবৈধ উপায়ে অর্জন করা অর্থ দিয়ে রাজধানীর মোহাম্মদপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় তার রয়েছে একাধিক ফ্ল্যাট। প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই একাধিক বিয়ে। করোনা সংক্রমনের কিছুদিন আগে রিয়াজুল কিনেছেন ৭০ লক্ষ টাকায় একটি বিলাসবহুল গাড়ি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিভিন্ন সূত্রে রিয়াজুল ইসলাম শুভর অসংখ্য অনিয়ম অনৈতিক কাজের তথ্য উঠে আসে জানিয়ে 'ফিন্যান্স টুডে' একটি সংবাদ পরিবেশনের উদ্যোগ নেয়। ইতিপূর্বেই 'ফিন্যান্স টুডে' আগাম প্রোমো হিসেবে ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট প্রচার করা হয়।

অভিযোগ রয়েছে, রিয়াজুল ইসলামের বিরুদ্ধে কেউ সংবাদ প্রচার করলে আইনি মাধ্যমে তাদেরকে হুমকি-ধামকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন তিনি। আর এই কাজে মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করেন অসংখ্য পুলিশ অফিসার ও রাজনৈতিক নেতাদের সাথে তার সেলফি।

'ফিন্যান্স টুডে'র পরবর্তী পর্বে সেলফিবাজ তদবিরবাজ ও প্রতারক রিয়াজুল ইসলাম শুভর সকল অপকর্মের বিস্তারিত বর্ণনা পাঠকের সামনে তুলে ধরা হবে।

Unauthorized use or reproduction of The Finance Today content for commercial purposes is strictly prohibited.


Popular Article from FT বাংলা