আবু তাহের বাপ্পা

Published:
2019-12-01 12:21:20 BdST

সম্পদ পাচারের দায়ে খালেদাসহ অন্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সৌদি


আবু তাহের বাপ্পা

সৌদি আরবে দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে আটক দেশি-বিদেশি নাগরিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে দেশটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। সম্প্রতি ওই অভিযানে ১৯ সৌদি নাগরিক ও ৫ বিদেশি নাগরিকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টও জব্দ করা হয়েছে।

পাকিস্তানি গণমাধ্যম দ্য ন্যাশনাল জানিয়েছে, সম্পদ পাচারের দায়ে অভিযুক্ত বিদেশি নাগরিকদের মধ্যে বাংলাদেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া এবং পাকিস্তানের নওয়াজ শরিফের নাম রয়েছে। খালেদা জিয়াকে অভিযুক্ত করে ইতিমধ্যে এক রাজকীয় ফরমানও জারি করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

মধ্যপ্রাচ্যের গণমাধ্যম আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের সম্পদ বিদেশ পাচার এবং ব্যক্তিগত কাজে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা ব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়েছে খালেদা জিয়া ও নওয়াজ শরিফের বিরুদ্ধে।

এ ব্যাপারে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বলেন, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের প্রাক্তন দুই প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ এবং খালেদা জিয়া অবৈধ অর্থের মাধ্যমে সৌদি আরবে বিভিন্ন সম্পত্তি ক্রয় করেছেন। এ ব্যাপারে অধিকতর তদন্তের জন্য আন্তর্জাতিক সহযোগিতাও কামনা করেন তিনি।

বিভিন্ন সূত্র বলছে, সৌদি আরবসহ খালেদা জিয়ার পরিবার বিভিন্ন দেশে ১২ বিলিয়ন ডলারের সম্পত্তি ক্রয় করেছেন। এর মধ্যে সৌদি আরবের আলফালা শপিংমলসহ কয়েকটি বহুতল ভবন কিনেছেন খালেদা জিয়া। এসব ভবন তার কনিষ্ঠ পুত্র আরাফাত রহমান কোকো তত্ত্বাবধায়ন করতেন।

সৌদি আরবের জাতীয় দুর্নীতিবিরোধী কমিশন জানিয়েছে, এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। তবে বিস্তারিত কিছু জানাতে অস্বীকার করেছে কমিশন।

তাদের ভাষ্য, তদন্ত চলমান থাকায় বিস্তারিত তথ্য জানানো যাবে না। এতে তদন্ত কাজ ব্যাহত হতে পারে। তদন্ত শেষে আইন অনুসারে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানানো হয়েছে কমিশনের পক্ষ থেকে।

https://www.youtube.com/watch?v=R47uG4GTDUU&feature=share&fbclid=IwAR13D6jZBguj3qRtwtLaJ7j-9YRwNtStC1D_uOk5kDDkZH3j8HRa86HBYpE

Unauthorized use or reproduction of The Finance Today content for commercial purposes is strictly prohibited.


Popular Article from FT বাংলা