April 15, 2024, 2:23 pm


নিজস্ব প্রতিবেদক

Published:
2024-03-30 14:55:57 BdST

ঈদে ঢাকা ছাড়বে প্রায় ১ কোটি মানুষ


আসন্ন ঈদুল ফিতর উদযাপন করতে এবার ঢাকা ছাড়বে প্রায় এক কোটি মানুষ। পরিবারের সাথে ঈদ কাটাতে গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জসহ এর আশপাশের জেলা থেকে আরও ৬০ লাখ মানুষ বাড়ি ফিরবে। এছাড়া, অন্য বিভাগীয় শহরগুলোতে কর্মজীবী ও শিক্ষার্থী রয়েছে অন্তত ২০ লাখ। তারাও ঈদে নিজ নিজ এলাকায় ফিরবে। 

আগামী ১০ বা ১১ এপ্রিল ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। সেই উপলক্ষ্যে এক জেলা থেকে অন্য জেলায়, এক উপজেলা থেকে অন্য উপজেলায় বা গ্রামে ঈদ করতে বন্ধের পাঁচ দিনে (আগামী ৫ থেকে ৯ এপ্রিল) বাড়ি ফিরবে পাঁচ কোটি মানুষ। সব মিলিয়ে ঈদের সময় সারা দেশে বাড়তি ৬০ কোটি ট্রিপ তৈরি হবে, যার বেশির ভাগের চাপ সামলাতে হবে গণপরিবহনকে।

ঢাকা ছাড়া কোটি মানুষের মধ্যে প্রায় ৭০ লাখ আগামী ৮ ও ৯ এপ্রিল গ্রামের পথে রওনা দেবে। কিন্তু ঢাকা থেকে সব ধরনের যানবাহন মিলিয়ে দিনে প্রায় ২৫ লাখ যাত্রী পরিবহনের সক্ষমতা রয়েছে। এ ক্ষেত্রে বাকি ২০ লাখ যাত্রী অব্যবস্থাপনা ও অতি ভোগান্তির মধ্য দিয়ে ঢাকা ছাড়তে হবে।

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির পর্যবেক্ষণমূলক তথ্য বলছে, ঢাকা ও আশপাশের জেলা থেকে ঈদের আগে চার দিনে বাস ও মিনিবাসে ৩০ লাখ, ট্রেনে চার লাখ, ব্যক্তিগত গাড়ি ও মাইক্রোবাসে ৩৫ লাখ, মোটরসাইকেলে ১২ লাখ, লঞ্চে ৬০ লাখ, উড়োজাহাজে এক লাখ এবং বাস-ট্রেনের ছাদে ও পণ্যবাহী খোলা ট্রাক মিলিয়ে আরো প্রায় ১৮ লাখ মানুষ বাড়ির পথে রওনা দেবে।

এদিকে আসন্ন ঈদ যাত্রায় তীব্র যানজটের কারণ হতে পারে, এমন ১৫৫টি জায়গা চিহ্নিত করেছে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর। এর মধ্যে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজার মহাসড়কে ৪৮টি, ঢাকা থেকে উত্তরাঞ্চল মহাসড়কে ৫২টি, ঢাকা থেকে ময়মনসিংহ মহাসড়কে ছয়টি, ঢাকা থেকে সিলেট মহাসড়কে ৪১টি এবং ঢাকা থেকে পাটুরিয়া ও আরিচা মহাসড়কে আটটি জায়গা চিহ্নিত করা হয়েছে। 

ঈদের সার্বিক ব্যবস্থাপনা প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী বলেন, ‘সম্ভাব্য সমস্যাগুলো আগেই চিহ্নিত করে সমাধানের জন্য কাজ করা হচ্ছে। এবারের ঈদ যাত্রা স্বাচ্ছন্দ্যের হবে। সংশ্লিষ্টদের নিয়ে আমরা একাধিকবার আলোচনা করেছি। ট্রাফিক পরিস্থিতি ও সড়ক স্বাভাবিক রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কোনোভাবেই আনফিট গাড়ি সড়কে চলতে দেওয়া হবে না। পণ্যবাহী যানেও যাত্রী পরিবহন নিষিদ্ধ করা হয়েছে।’

Unauthorized use or reproduction of The Finance Today content for commercial purposes is strictly prohibited.


Popular Article from FT বাংলা