May 25, 2024, 2:15 pm


আড়াইহাজার প্রতিবেদক:

Published:
2024-05-14 14:32:57 BdST

আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচনপছন্দের প্রার্থীকে জেতাতে মরিয়া হুইপ বাবু, মানছেন না আচরণবিধি


# সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে শঙ্কায় অন্য প্রার্থী ও ভোটাররা
# নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন এক প্রার্থী

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সামনে রেখে নিজের পছন্দের চেয়ারম্যান প্রার্থীকে জেতাতে মাঠে নেমেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু। এর আগে দলীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করে হুইপ বাবু উপজেলা চেয়ারম্যান পদে সাইফুল ইসলাম স্বপনকে নিজের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা দেন। এরপর নির্বাচনী আচরণবিধির তোয়াক্কা না করে স্বপনের পক্ষে প্রতিদিনই নির্বাচনী কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছেন বাবু। স্বপনকে জেতাতে তার পক্ষে মাঠে নামতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশও দিয়েছেন তিনি। প্রভাব বিস্তার করছেন স্থানীয় প্রশাসনে। এছাড়া অন্য প্রার্থীদের কর্মী-সমর্থকদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগও উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

এমন পরিস্থিতিতে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে শঙ্কায় আছেন চেয়ারম্যান পদের অন্য প্রার্থীরা। এ বিষয়ে ব্যবস্থা চেয়ে হুইপ বাবুর বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচনের অন্যতম চেয়ারম্যান প্রার্থী ও উপজেলা পরিষদের পরপর দুইবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান মো. শাহজালাল মিয়া। তিনি আড়াইহাজার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি। বর্তমানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পদেও আছেন হুইপ বাবু।

গতকাল সোমবার নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীরের জমা দেওয়া লিখিত অভিযোগে চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহজালাল লিখেছেন, ‘‘অত্যন্ত দুঃখের সহিত অভিযোগ করিতেছি যে, আমাদের নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য ও হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু উপজেলা নির্বাচনের আচরণবিধির বিন্দুমাত্র তোয়াক্কা না করে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নিজেই একজন পছন্দের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে জনসাধারণকে হুমকি দিয়ে বলছেন, ‘আমার প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপনকে যেকোনো মূল্যে পাশ করাতে হবে। হুইপ বাবু আরও বলেছেন, ‘ক্ষমতা, অর্থকড়িসহ সকল প্রশাসন আমি দেখবো।”

শাহজালাল আরও অভিযোগ করে লিখেছেন, ‘হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু তার ক্ষমতা ব্যবহার করে প্রকাশ্যে তার চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইফুল ইসলামের পক্ষে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা করে যাচ্ছে। আমার কর্মী সমর্থককে বিরতিহীনভাবে হুমকি, ভয়ভীতি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। এতে করে আমার নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা সৃষ্টি হচ্ছে। হুইপ নজরুল ইসলাম বাবু আমার সম্ভাব্য এজেন্টদের হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন। অকথ্য ভাষায় আমাকে গালাগাল করছেন। প্রার্থী সাইফুল ইসলাম স্বপন আমার নেতাকর্মী, সম্ভাব্য এজেন্টদের ভয়ভীতি প্রদর্শন, হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন। এতে করে অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে।’ এমন প্রেক্ষাপটে নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থে হুইপের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা এবং বিধি লঙ্ঘণের দায়ে প্রার্থী স্বপনের প্রার্থীতা বাতিলসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন শাহজালাল মিয়া। অভিযোগের সঙ্গে তিনি হুইপের প্রচারে অংশ নেওয়ার বিভিন্ন তথ্য, ভিডিও এবং পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের কাটিং সংযুক্ত করেছেন।

আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীরা জানান, ২০২২ সালে অনুষ্ঠিত কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হয়েও তরুণ প্রতিদ্বন্দ্বির কাছে ২ হাজারেরও বেশি ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হন স্বপন। নির্বাচনের আচরণবিধি ও দলীয় নির্দেশনা উপেক্ষা করে সেই স্বপনকেই এবার উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও হুইপ বাবু। ইউপিতে পরাজিত কাউকে উপজেলায় প্রার্থী ঘোষণা করার বিষয়টি সহজে মেনে নিতে পারছেন না আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতাকর্মীরা। তাই ক্ষুব্ধ হয়ে চেয়ারম্যান পদে এবার নয়জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। তবে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে চাপ প্রয়োগ করে ছয়জনকে মনোনয়ন প্রত্যাহারে বাধ্য করা হয়েছে। বর্তমানে স্বপন ছাড়াও চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে মাঠে আছেন সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শাহজালাল মিয়া এবং সাবেক ভিপি কাজী সুজন ইকবাল। আগামী ২১ মে এ উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষে হুইপের মাঠে নামার বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য-প্রমাণ থাকার পরও কেন ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে নাÑ এ বিষয়ে জানতে চাইলে আড়াইহাজার, রূপগঞ্জ ও সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. সাকিব আল রাব্বি বলেন, এ ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না। খোঁজ নিয়ে তারপর বলতে পারবো।

Unauthorized use or reproduction of The Finance Today content for commercial purposes is strictly prohibited.


Popular Article from FT বাংলা